Category: কবিতা

কিরণ – শুচিস্মিতা বিশ্বাস

কিরণ -শুচিস্মিতা বিশ্বাস “ভোরের সূর্য যেন সোনালী আভা পাখি ডাকে শাখে শাখে গান গায় মেলা। সকালে রবির আলো যেন জ্যোতির ছটা জল হাওয়ায় মিলে মিশে করে যায় খেলা। দুপুরের ভাষ্কর যেন গনগনা চারদিক নিস্তব্ধ...

সেরিব্রাল-জয়দেব মহন্ত

“বাখল এলিয়ে ঢাকছে,শালুক-জ্যোৎস্না অতৃপ্ত কুয়াশায় শতরঞ্জি খুলে- গলানো মুখোশ সেরিব্রাল চায়। কুঞ্চি খামের গা ঘিষে এবার সারা দাও। লুলুপ্ত গহ্বর তাকাও- বালিয়ারি শিষে বাইনোকুলার ঝুলিয়ে; ধানুস সাজানো ভ্যাপসা লাটে পরে রয়েছে দ্বীপালি কাঠ। গলে...

খোঁজ- শুচিস্মিতা বিশ্বাস

“ওগো নীল দিগন্ত কি আছে তব পারে? দেখিবারে মম মন চায়। কভু কি পাইব দেখা তার নাকি বৃথা যাবে জীবন আমার শুধুই কি কল্পনা- নাকি আছে তার ও ঠিকানা। যুগ যুগ ধরে প্রতি দ্বারে...

কবিতা- পৈতৃক ঝোলা

“কিছু কয়েনের ভাড়,টাল সামলাতে হিম-সিম খায়,কুঠরির থালা। রাস্তার ধারে বাউলের সুর, তবু ছাড়ে না ফুটপাত। বৈরাগী পৈতৃক ঝোলা গুটিশুটি,শীতের ফানুস কাঁটে। বেডরুম,সোফার আগলানো রাত পৌঁছাতে পারে না কুঠরির থালায়। ল্যাম্পপোস্টে তবুও আসে বসন্ত, তবে...

কবিতা- বিশ্বাস

“বিশ্বাস সে যে পরম প্রাপ্তি তিলে তিলে ওঠে গড়ে সেটাই আবার পলকা এমন একটুতে যায় নড়ে। যাবৎ জীবন সঞ্চিত যত সম্পদ সম্মান পলক ফেলিতে হাতছাড়া হয় ভুল হলে অনুমান। আসিবার বেলা শম্বুক গতি যাইবারে...

কবিতা- দিনলিপি

[wonderplugin_carousel id=”1″]   “ভালবাসা কাছে টানে কভু দূরে দেয় ঠেলে অনুনয় অনুরাগে জীবনের সাথী মেলে। দিনে দিনে জমে উঠে কত রাগ অভিমান অগ্নূত্পাতে হয় এক জমি আসমান। অভিযোগে অনুযোগে প্রশ্নে দায়িত্ব অনুভবে অনুভবে জাগে...

পালক : জয়দেব মহন্ত

গুচ্ছ-গুচ্ছ পালক সম্ভার বিদির্ণ জুড়ে বন্ধি-খাঁচায় উড়ি কেমন করে ? ঝরাপালরে উটপাখির মতো বল্কল খশে পরে কঙ্কাল সুরভি অঙ্গ; উজ্বল বরেন্দ্র ভূমি ষুসুমার কলিঙ্গ মলিন হয়ে ওঠে স্ফোটিক আখর যতো। বিবর্ণ আকাশে ছিটিয়ে রক্ত...

মা / যাদব চৌধুরী

“জনে জনে জিজ্ঞাসে কে কি নেবে প্রাতঃরাশে আয়োজনে বেলা কাটে সারাদিন শুধু খাটে মুখে হাসি সবাকার সদা তার কাম্য, বড় ছোট ভেদ নাহি সবে পায় মন চাহি ছেলে নাতি বৌমা বিবাহিত কন্যা শুধু তার...

কবিতা- পণপ্রথা

<p style=”font-size: 20px; text-align:justify;” > “পণ কি শুধু টাকার অঙ্কে মূল্য? পণ কি শুধু নিয়ম জালে আবদ্ধ? পণের সাথে মিশে আছে – মায়ের অশ্রু বন্যা, বাবার হাহাকার, কত মেয়ের দগ্ধ দেহের চিৎকার। কত ফুল...

কবিতা- খোকার বায়না

“সোনা মাখানো হিরে জড়ানো মুকুট দেখে বলল খোকা “দে মা, আমায় পুতুল কিনে দে” মা বলে, “দেব খোকা মুকুট পরে কিনে।” শাড়ি পড়া  পুতুল নাচের পুতুল খেলায় মেতে উঠে বলল খোকা “দে মা, আমায়...